সিএমপিতে তৈরি হচ্ছে প্লাজমা ব্যাংক

0
65

পিনিউজ ডেস্ক:

করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের (সিএমপি) সদস্য যারা সুস্থ হয়েছেন তাদের নিয়ে তৈরি হচ্ছে প্লাজমা ব্যাংক। পুলিশ সদস্যদের পাশাপাশি প্লাজমা ব্যাংকে চট্টগ্রাম মহানগরের বাসিন্দা যারা করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন তাদেরও অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে।

সিএমপির এই প্লাজমা ব্যাংক কার্যক্রম তদারকির জন্য সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (প্রশাসন ও অর্থ) আমেনা বেগমকে প্রধান করে একটি মনিটরিং কমিটিও করা হয়েছে। কমিটিতে উপ-কমিশনার (সদর) আমির জাফর ও অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (সদর) মোহাম্মদ মঈনুল ইসলাম ও বিভাগীয় পুলিশ হাসপাতালের চিকিৎসকদের রাখা হয়েছে।

করোনা রোগীদের চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগের বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে সিএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান প্লাজমা ব্যাংক তৈরির উদ্যোগ নেন।

প্লাজমা ব্যাংক তৈরির কাজ ইতোমধ্যে শুরু করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে করোনা থেকে সুস্থ হওয়া সিএমপির ৩৯ জন সদস্যকে এই প্লাজমা ব্যাংকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। নতুন করে যারা সুস্থ হবেন তাদেরকেও অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

এছাড়া চট্টগ্রাম মহানগরে বসবাস করা ব্যক্তি যারা করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন তাদের ডাটাবেজ তৈরি করতে সিএমপির প্রত্যেকটি থানায় নির্দেশনাও দিয়েছেন সিএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান।

সিএমপির তৈরি এই প্লাজমা ব্যাংক থেকে সিএমপির সদস্য ও চট্টগ্রামে যারা আক্রান্ত হবেন তাদের জন্য প্লাজমা দেওয়া হবে।

সিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (জনসংযোগ) মোহাম্মদ আবুবকর সিদ্দিক বলেন, করোনা রোগীদের চিকিৎসায় প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগের বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে সিএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান স্যারের নির্দেশে একটি প্লাজমা ব্যাংক চালু করা হচ্ছে। সিএমপির এই প্লাজমা ব্যাংকে প্রাথমিকভাবে করোনা থেকে সুস্থ হওয়া সিএমপির ৩৯ জন সদস্যকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। নতুন করে যারা সুস্থ হবেন তাদেরকেও অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

মোহাম্মদ আবুবকর সিদ্দিক বলেন, চট্টগ্রাম মহানগরে বসবাস করা ব্যক্তি যারা করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন তাদের ডাটাবেজ তৈরি করতে সিএমপির প্রত্যেকটি থানায় নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে। এই প্লাজমা ব্যাংক থেকে সিএমপির সদস্য ও চট্টগ্রামে যারা আক্রান্ত হবেন তাদের জন্য প্লাজমা দেওয়া হবে।