ঘুম সম্পর্কে অজানা ১০টি তথ্য

0
132

পি নিউজ ডেস্ক: ঘুম প্রতিটা প্রানীর জন্যেই গুরুত্বপূর্ন। বিজ্ঞানিরা এখনো ঘুমের প্রক্রিয়াটা পুরোপুরি বের করতে পারেন নাই, কিন্তু আমরা সবাই এই প্রতিদিনের কার্যবিধি সম্পর্কে জানি। প্রতিটি স্তন্যপায়ী প্রানী, সরীসৃ্প, উভচর, পাখি, মাছ সবাইকেই ঘুমাতে হয়। আজকে ঘুমের কয়েকটি তথ্য আপনাদের দিব যা হয়ত আপনারা জানতেন না।

১। আপনি যখন ঘুমান তখন আপনার শরিরে কি হয় তা জানেন?

আপনার ব্রেইন শক্তি লাভ করে
আপনার শরিরের নষ্ট হওয়া সেল গুলো নিজে নিজে ঠিক হয়
আপনার শরীর গুরুত্বপূর্ন হরমন মুক্ত করে

২। বয়স অনুপাতে আপনার ভিন্ন ধরনের ঘুম দরকার।

বাচ্চাদের – ১৬ ঘন্টা
৩ থেকে ১২ বছর – ১০ ঘন্টা
১৩ থেকে ১৮ বছর – ১০ ঘন্টা
১৯ থেকে ৫৫ বছর – ৮ ঘন্টা
৬৫ বছরের উপরে – ৬ ঘন্টা

৩। পুরুষ তার স্বপ্নে অন্য পুরুষ কে দেখে ৭০% সময়, কিন্তু নারী তার স্বপ্নে পুরুষ এবং নারী উভয়কেই সমান সময় দেখে।

৪। আমরা স্বপ্নে তাদের ই দেখি যাদের মুখ আমাদের পরিচিত। তবে যার মুখ আপনি প্রতিদিন দেখেন না তাকেও আপনি স্বপ্নে দেখেন।

৫। প্যারাসমনিয়া একটা ঘুমের রোগ যা আপনাকে ঘুমের মধ্যে অস্বাভাবিক কাজ করায়। এই রোগের কারনে সংঘটিত হওয়া অপরাধ সমূহঃ-

ঘুমের মধ্যে গাড়ী চালানো
ভূল চেক লেখা
হত্যা
শিশু নির্যাতন
ধর্ষন

৬। স্বপ্ন একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া, যে মানুষ স্বপ্ন দেখে না সে অস্বাভাবিক।

৭। ঘুমের পোজিশন আপনার পারসনালিটি বহন করে।

** ফেটাল স্টাইল : এই আদলে ৪১% মানুষ ঘুমায়। সাধারনত এরা বদমেজাজী হয় তবে এদের মন অনেক বড় হয়।
** লগ স্টাইল : ১৫ % মানুষ এইভাবে ঘুমায়। এরা সাধারনত সামাজীক উরনচন্ডি হয়।
** দ্যা ইয়ারর্নার স্টাইল : ১৫ % মানুষ এভাবে ঘুমায়। এরা সাধারণ ভাবে চলে কিন্তু ভেতরে ভেতরে সন্দেহজনক।
** সোলজার স্টাইল : ৮% এভাবে ঘুমায়। সাধারনত সংরক্ষিত মানসিকতার হয়
** ফ্রি ফল : ৭% মানুষ এভাবে ঘুমায়। এরা খুম আমুদে হয়।
** স্টারফিশ স্টাইল : ৫ % মানুষ এভাবে ঘুমায়। এরা সাধারনত খুব ভালো শ্রোতা হয়।

৮। স্তন্যপায়ী প্রানিদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঘুমায় :

কোয়ালাস : দিনে ২২ ঘন্টা ঘুমায়
ব্রাউন ব্যাট : দিনে ১৯.৯ ঘন্টা ঘুমায়
প্যানগোলিন্স : এরা দিনে ১৮ ঘন্টা ঘুমায়

সব চেয়ে কম ঘুমায় এমন স্তন্যপায়ী প্রানী :

গিরাফেস : ১.৯ ঘন্টা ঘুমায় দিনে। ঘুমের সময় ৫-১০ মিনিট।
রো হরিন : ৩.০৯ ঘন্টা ঘুমায় দিনে
এশিয়াটিক এলিফেন্ট : ৩.১ ঘন্টা ঘুমায় দিনে

৯। ডলফিন যখন ঘুমায়, তখন তার ব্রেইন এর অর্ধেক বন্ধ থাকে। বাকি অর্ধেক তাকে শ্বাস নিতে সাহাজ্য করে।

১০। আপনি না খেয়ে মরবেন না কিন্তু না ঘুমিয়ে মরবেন। ২ সপ্তাহ না খেয়ে থাকতে পারবেন কিন্তু ১০ দিন না ঘুমালে মারা পড়বেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here