চেয়ারম্যান প্রার্থী গাজী মুহাম্মদ ইদ্রিসের জয় কামনা করে চট্টগ্রামের শীর্ষস্থানীয় আলেমদের দোয়া ও বিশেষ মুনাজাত

0
100

 

পি নিউজ ডেস্ক: বৃহস্পতিবার রাত ১১টার সময় পটিয়া জঙ্গল খাইন খানেকায়ে কাদেরীয়া তৈয়্যবিয়া তাহেরীয়ায় খতমে কুরআন শরীফ, খতমে বোখারী শরীফ ও মিলাদ মাহফিল শেষে  আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী, জঙ্গল খাইন খানেকা শরীফের সভাপতি, লায়লা আনোয়ার সুন্নিয়া মাদরাসা ও হিফযখানার প্রতিষ্ঠাতা আলহাজ্ব গাজী মুহাম্মদ ইদ্রিসের জয়ের জন্য চট্টগ্রামের শীর্ষস্থানীয় প্রায় চল্লিশজন আলেম খানেকা শরীফের হুজরায় বসে দোয়া ও বিশেষ মুনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী গাজী ইদ্রিস এক সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় সুন্নী আলেমদের উদ্যেশে বলেন, প্রশাসনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে সুন্নীদের লোকবলের অভাবে আজ সুন্নীদের অবস্থা বড়ই নাজুক। ওহাবীরা বিভিন্ন কৌশলে গুরুত্বপূর্ণ পদ গুলো দখল করে সাধারণ ধর্ম প্রাণ মানুষদের বিপদগামী করছে।আমরা ঐতিহ্যগত ভাবে সুন্নী আক্বিদায় বিশ্বাসী এবং সুন্নী আক্বীদার প্রচার প্রসারে বিভিন্ন উদ্যেগ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। কুরআন ও হাদীস শরীফে আছে ইসলামে হুজুগী মনোভাবের স্থান নেই, যেখানে সোজা কথা বলতে গিয়ে জানমালের ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দেয় সেখানে হিকমত অবলম্বন করতে হবে।বর্তমান সময়ে সরকারের আস্থা অর্জন করে সুন্নীয়তের কাজ করায় হবে উত্তম হিকমত। তাই আমি নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান হয়ে সরকারের যাবতীয় সহযোগীতা নিয়ে সুন্নীয়ত ও এলাকার সর্বস্তরের জন সাধারণের কল্যাণ করার জন্য এ পথের যাত্রী। আল্লাহ আমাকে যা দিয়েছেন আমার ছেলে সন্তানদের নিয়ে সুখে শান্তিতে চলে যেতে পারছি ভবিষ্যতেও পারবো ইনশা আল্লাহ। একমাত্র আমার ইউনিয়নের মানুষের কথা ভেবে, তাদের দু:খ কষ্ট সহ্য করতে না পেরে, রাস্তা ঘাট উন্নয়ণসহ যাবতীয় সরকারী সুযোগ সুভিধা মানুষের দৌড়গোড়ায় পৌছে দিতে আজ আমি চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছি। তাই আজ আপনাদের কাছে একটায় মিনতি- আমার কিছু কাছের মানুষ মুনাফিক হয়ে আমার সাথে ষড়যন্ত্র করছে, আমার নামে বদনাম রটিয়ে লিফলেট ছাপিয়ে বিতরণ করে নোংরা ও নীচু মনের পরিচয় দিচ্ছে। আজ আমি কঠিন পরিস্থিতিতে দাড়িয়ে আছি। আল্লাহ যেন তার হাবীব ও গাউছে আযমের উচিলায় আমার ইজ্জত রক্ষা করেন তার জন্য আপনারা একটু দোয়া করবেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রার্থীর ছোট ভাই সুদূর কাতার থেকে আগত গাজী মুহাম্মদ ফরিদুল আলম, গাজী মুহাম্মদ জামাল উদ্দিন, মুহাম্মদ আবদুল আজিজ বাবুল, গাজী মুহাম্মদ ইয়াছিন, গাজী মুহাম্মদ হানিফ, গাজী বাহার প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here