শেখ হাসিনা বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমন নিপীড়নের মাধ্যমে দেশে বাকশাল কায়েম করেছে

0
94

পি নিউজ ডেস্ক :দলীয় কার্যালয় নাসিমন ভবনে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভা চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উদেষ্টা সাবেক মন্ত্রী, মেয়র ও রাষ্ট্রদূত মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও রাষ্ট্রদূত গোলাম আকবর খন্দকার, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম, আবুল হাশেম বক্কর, নগর বিএনপির সহ-সভাপতি আলহাজ্ব সামশুল আলম। বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা মোঃ মিয়া ভোলা, মোঃ আলী, এম.এ. আজিজ, শেখ নুরুল্লাহ বাহার, এস.এম. সাইফুল আলম, হারুন জামান, সৈয়দ আজম উদ্দিন, সুবুক্তগীন ছিদ্দিকী মুক্কি, আনোয়ার হোসেন লিপু, ইসকান্দর মির্জা, শাহ আলম, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, কাউন্সিলর আবুল হাশেম, শামসুল আলম, ফাতেমা বাদশা, মনোয়ারা বেগম মনি, খোশেদ আলম, জাহাঙ্গীর আলম দুলাল, মোঃ মহসিন, বাবু টিংকু দাশ, শাহেদ বক্স, আবু তাহের, কামরুল ইসলাম, জেলি চৌধুরী, নজরুল ইসলাম সরকার, হাজী নবাব খান, জাহেদুল হাসান, হাজী মীর কাউসার এলাহী, আলাউদ্দিন আলী নুর, হাজী হানিফ সওদাগর, মোঃ সালাহ উদ্দিন, হাজী মোঃ মহসিন, শওকত আজম খাজা, এস.এম. জি আকবর, হাজী মুহাম্মদ মহসিন চৌধুরী, তৌহিদুস সালাম নিশাদ, নুর হোসেন, হাবিবুর রহমান চৌধুরী, মোঃ বেলাল, মোঃ সেলিম, শাহ আলম, ফয়েজ আহমদ, দিদারুল আলম স্বপন, আব্বাস রশিদ, মোঃ আসলাম, নুর হোসেন, আতাউল্লাহ বাবু, এ.কে.এম. পেয়ারু, আলহাজ্ব জাকির হোসেন, হাজী এমরান উদ্দিন, আব্দুল নবী প্রিন্স, ডা. এস.এম সরওয়ার আলম, শিহাব উদ্দিন মোবিন, খায়রুজ্জামান জুনু, মঞ্জুর কাদের মিন্টু, আব্দুল জলিল, খালেদা বোরহান, সায়মা হক, আখিঁ সুলতানা, মোঃ আলী মিঠু, সাব্বির আহমদ, আব্দুল হালিম স্বপন, সাইফুল ইসলাম শপথ, মোঃ ইকবাল, এইচ.এম. রাশেদ খান, ফজলুল হক সুমন, মোশাররফ হোসেন, আলী মর্তুজা, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, জিয়াউর রহমান জিয়া, জালাল উদ্দিন সোহেল, আজাদ বাঙ্গালী, ছাদেকুর রহমান রিপন, এমদাদুল হক বাদশা, মোস্তাকিম মাহমুদ প্রমুখ।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মীর মুহাম্মদ নাছির উদ্দিন বলেন, দেশে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল গঠন করেছিলেন। যা ছিল তার রাজনৈতিক দুরদর্শিতা। সর্বোচ্চ আদালত কর্তৃক ১৬তম সংশোধনীয় বাতিলের মাধ্যমে বিগত ৩৮ বছর আগের শহীদ জিয়ার ঐ সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল গঠনকে বিরল দৃষ্টান্ত বলে প্রমাণ করেছেন। রাজনৈতিক বিধি ১৯৭৭ এর আওতায় আওয়ামী লীগ নিবন্ধন পেয়েছিল। যার মাধ্যমে তারা রাজনৈতিক দল হিসেবে নতুন জীবন পেয়েছিল।
মীর নাছির আরও বলেন, বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রর্বক্তা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান সেদিন জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠার জন্য ডান -বাম ও মধ্য পন্থীদের নিয়ে জাগদল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে গোলাম আকবর খন্দকার বলেন, সরকার আজ সারা দেশকে একটি কারাগারে পরিণত করেছে। বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াসহ সকল নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে যাচ্ছে। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও উত্তর জেলা বিএনপির আহবায়ক আসলাম চৌধুরীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে রাষ্ট্রদ্রোহি মামলা করেছে এ সরকার।
প্রধান বক্তা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেন, স্বাধীনতার ঘোষক, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান, চট্টগ্রাম কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। শহীদ জিয়া রণাঙ্গনে যুদ্ধ করে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। ফলে শহীদ জিয়া বীর উত্তম খেতাবে ভূষিত হয়েছিলেন। বিএনপি একটি মুক্তিযুদ্ধের দল। দূর্নীতি,দুঃশাসন, গুম, খুন, মিথ্যা মামলার বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামে সকল নেতাকর্মীদের এগিয়ে আসতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here