নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ভোটে জেলা পরিষদ নির্বাচন সংবিধানের পরিপন্থী

0
45

পিনিউজ ডেস্ক : জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রক্রিয়া সংবিধানের মৌলিক বিষয়ের পরিপন্থী বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশের সংবিধানে স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে, জেলা পরিষদ নির্বাচন প্রত্যক্ষ ভোটের মাধ্যমে হতে হবে। অথচ বর্তমান সরকার প্রত্যক্ষ ভোটে না গিয়ে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ভোটে ইলেকট্রোরাল ভোটের মাধ্যমে উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে। যা সংবিধান পরিপন্থী।’
জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রক্রিয়া সংবিধানের মৌলিক বিষয়ের পরিপন্থী বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রোববার দুপুরে জোটের মহাসচিব পর্যায়ের নেতাদের বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘দেশের সংবিধানে স্পষ্ট উল্লেখ রয়েছে, জেলা পরিষদ নির্বাচন প্রত্যক্ষ ভোটের মাধ্যমে হতে হবে। অথচ বর্তমান সরকার প্রত্যক্ষ ভোটে না গিয়ে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ইলেকট্রোরাল ভোটের মাধ্যমে উদ্যোগ নিতে যাচ্ছে। যা সংবিধান পরিপন্থী।
ডিসেম্বরে জেলা পরিষদ নির্বাচনে ২০দলীয় জোট অংশ নেবে কিনা? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এ ব্যাপারে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে জোটের শীর্ষ নেতাদের বৈঠকে। আজকে আমরা দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেছি। আলোচনায় বিশেষ প্রাধান্য পেয়েছে আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রসঙ্গ। চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।’
২০ দলীয় জোটের মহাসচিবদের সকল বিষয়ে অবগত করা হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যেই ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ পর্যায়ে বৈঠক করে এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান মির্জা ফখরুল।
অভিযোগ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সম্প্রতি পুলিশ-র‌্যাব দুই বাহিনীর স্ববিরোধীতায় প্রমাণিত হচ্ছে দেশে আইনের কোনো শাসন নেই। খবরের কাগজ খুললেই প্রতিনিয়ত হত্যা, হত্যা আর হত্যা। আইনশৃঙ্খলার দায়িত্বে নিয়েজিতরা বেশি লাইসেন্স পেয়ে গেছে তাই তাদের কোনো কিছুতেই জবাবদিহিতা নেই। যা দেখে মাঝে মাঝে মনে হয় দেশে কি আদৌ কোনো সরকার আছে?’
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই সরকার মুখে গণতন্ত্রের কথা বলে কিন্তু তারা দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করছে। জনগণের মৌলিক অধিকার হরণ করে নিচ্ছে। এ যেন ‘ফ্রি ফর অল’ অবস্থায় এসেছে দাঁড়িয়েছে। কারো কাছে কোনো জবাবদিহিতা করতে হয় না বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অনায়াসে মানুষকে তুলে নিচ্ছে। টাকা দাবি করছে, যারা টাকা দিতে ব্যর্থ হয় তাদেরকে জঙ্গি হিসাবে কারাগারে পাঠাচ্ছে।’
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘গতকাল তিনি (ওবায়দুল কাদের) বলেছেন বিএনপি সঙ্গে আলোচনা হবে না। আর আজকে বলছে বিএনপি যে কোনো বিষয়ে আলোচনা করতে পারে। তার এই দ্বৈত বক্তব্যই প্রমাণ করে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার কতটা সুবিধাবাদের ওপর ভিত্তি করে টিকে আছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here