‘করোনা মোকাবিলা করতে গিয়ে সরকার পথ হারিয়ে ফেলেছে’

0
43

পিনিউজ ডেস্ক:

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মোকাবিলা করতে গিয়ে সরকার পথ হারিয়ে ফেলেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

শনিবার (২৩ মে) বেলা ১১টায় নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে ভিডিও প্রেস কনফারেন্সে তিনি এ মন্তব্য করেন

রুহুল কবির রিজভী বলেন, করোনা মোকাবিলা করতে গিয়ে মনে হয় সরকার পথ হারিয়ে ফেলেছে। প্রতিটি ক্ষেত্রে তাদের সিদ্ধান্তহীনতা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। এ সম্পর্কে শুক্রবার (২২ মে) দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান একটি সতর্ক বার্তা দিয়েছেন। আমি মনে করি, এটি দেশের স্বার্থেই গুরুত্বসহকারে ভাবা উচিত।

তিনি বলেন, সরকার নিজেরাও পরিস্থিতি সামাল দিতে পারছে না, অপরদিকে কেউ সহযোগিতা করতে চাইলে তারা নিজেদের হীন দলীয় স্বার্থে সেটি গ্রহণ করার মতো মানসিকতাও তাদের নেই।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, প্রতিটি দেশ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। করোনা ভাইরাসের চিকিৎসায় এখন পর্যন্ত বিশ্ব স্বীকৃত কোনো মেডিসিন আবিষ্কার হয়নি। এ অবস্থায় সব দেশই করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থাকেই অগ্রাধিকার দিচ্ছে। প্রতিদিন বেশিসংখ্যক মানুষকে টেস্টের আওতায় এনে করোনা উপসর্গ থাকলে আগেভাগেই আইসোলেশনে নেওয়া কিংবা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণকেই অন্যতম সাফল্য বলে মনে করা হচ্ছে। অথচ বাংলাদেশে ঠিক উল্টো চিত্র। দেশের মানুষ নিজ উদ্যোগে করোনা ভাইরাস পরীক্ষা এবং করোনা চিকিৎসা করাতে গিয়েও নানা বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন।

তিনি বলেন, বর্তমানে দেশের অসংখ্য মানুষ অর্ধাহার-অনাহারে দিন কাটছেন। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ভীতি উপেক্ষা করে ক্ষুধার যন্ত্রণায় এক মুঠো খাবারের দাবিতে অসহায় মানুষ নেমে আসছে রাজপথে। বাড়ছে বুভুক্ষ মানুষের হাহাকার।

রিজভী বলেন, দেশে চলছে নিরব দুর্ভিক্ষ পরিস্থিতি। এমন পরিস্থিতিতেও সারাদেশে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের ত্রাণের চাল চুরি, নানা কৌশলে অসহায় মানুষদের জন্য বরাদ্দ সরকারি টাকা আত্মসাৎ, সরকারিভাবে গরিব কৃষকদের কাছ থেকে ধান ক্রয়ের জন্য করা তালিকাতেও চলছে জালিয়াতি। মানুষের এমন বিপদকালেও ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের চুরি-দুর্নীতি প্রমাণ করে, এ দল এবং সরকার এখন সম্পূর্ণভাবে লুটেরা পরিবেষ্টিত।