‘উহানের সামুদ্রিক খাবারের বাজার থেকে করোনার উৎপত্তি হয়নি’

0
40

পিনিউজ ডেস্ক:

বিশ্বজুড়ে মহামারী রুপ নিয়েছে করোনাভাইরাস। দ্রুত ছড়িয়ে পড়া এই ভাইরাস চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান শহরে প্রথম ছড়িয়েছে।

সেই শহরের এক নারী সবার আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হন বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে উঠে আসে।

ওই নারী জ্যান্ত বাগদা চিংড়ি বাজারে বিক্রি করতেন। বন্যপ্রাণী বিক্রির বাজারে তার দোকান ছিল বলে সম্প্রতি ফাঁস হওয়া নথিতে বেরিয়ে আসে।

তবে উহান শহরের সামুদ্রিক বাজার থেকে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়নি বলে এবার দাবি করেছেন চীনের এক দল গবেষক।

চীনের সাংহাই সায়েন্টিফিক রিসার্চ এন্ড মেডিক্যাল ইন্সটিটিউট, সাংহাই পাবলিক হেলথ ক্লিনিকাল সেন্টার, সাংহাই জিয়াও টং বিশ্ববিদ্যালয় ও সাংহাই ইন্সটিটিউট অব হেমাটোলজির একটি যৌথ গবেষণায় এমনটি দাবি করা হয়। গবেষণাটি গত ২০ মে ন্যাচার জার্নালে প্রকাশিত হয়।

ওই গবেষণায় বলা হয়, গত ২০ জানুয়ারি থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সাংহাইর ৩২৬ জন রোগী থেকে ১১২টি নমুনা সংগ্রহ করে করোনা ভাইরাসের দুটি প্রধান আলাদা জাত খুঁজে পেয়েছেন গবেষকরা। গবেষকদের দাবি, করোনার এই দুটি আলাদা জাত উহানে সংক্রমণের প্রথম দিকে মানুষকে বিভিন্নভাবে আক্রান্ত করেছে । এছাড়াও গবেষকরা জানান, নতুন করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি উহানের বাজারের সামুদ্রিক কোন প্রাণী থেকে হয়েছে এমন প্রমাণ তারা পায়নি। তবে উহানের সেই বাজার থেকে মানুষের মাধ্যমে করোনা ছড়িয়ে পড়তে পারে এমনটি মনে করছেন গবেষকরা।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই গবেষক দলের এক নারী সদস্য চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমসকে বলেন, এই ভাইরাসের উৎপত্তি কোথায় সেটি এখনো অজানা। করোনা ভাইরাস কার মাধ্যমে ছড়িয়েছে সেটি বের করার জন্য আরো গবেষণা চালিয়ে যেতে হবে।

গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দেয়। এখন পুরো প্রায় পুরো বিশ্বে এটি ছড়িয়ে পড়েছে। যুক্তরাষ্ট্রসহ অনেক দেশই বলছে, সামুদ্রিক বাজার নয় উহান ইন্সটিটিউট অব ভাইরোলজি ল্যাব থেকে ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস। তবে চীনের পক্ষ থেকে এটি বারবার নাকচ করা হচ্ছে।