রোববার থেকে খুলছে পুঁজিবাজার

0
49

পিনিউজ ডেস্ক:

দীর্ঘ ৬৫ দিন বন্ধ থাকার পর রোববার থেকে ফের শুরু হচ্ছে পুঁজিবাজারে লেনদেন। দুই মাসেরও বেশি সময় পর লেনদেন চালু হওয়া নিয়ে স্টেকহোল্ডার ও বিনিয়োগকারীদের মধ্যে যেমন উচ্ছ্বাস রয়েছে, তেমনি কভিড-১৯-এর সংক্রমণ বেড়ে যাওয়া নিয়ে বিরাজ করছে আশঙ্কাও।

দেশের পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এরই মধ্যে পুঁজিবাজারে লেনদেন চালুর বিষয়ে অনাপত্তি দিয়েছে। বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল-ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ৭২৬তম কমিশন সভায় বৃহস্পতিবার এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

কমিশনের সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্রগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ(সিএসই) ৩১ মে রোববার সকাল সাড়ে ১০ টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত লেনদেনের ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

কমিশন সভা শেষে বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক মো. আনোয়ারুল ইসলাম স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, কভিড-১৯ এর বিস্তাররোধে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় নির্দেশিত সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত অফিস আদেশ পরিপালন সাপেক্ষে দুই স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন ও সেটেলমেন্টসহ এ সংক্রান্ত সব কর্মকাণ্ড পুনরায় শুরু করার বিষয়ে বিএসইসির পক্ষ থেকে অনাপত্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

পুঁজিবাজার চালু হলে বিও হিসাবে জমা থাকা নগদ অর্থ দিয়ে নতুন করে শেয়ার কিনতে পারবেন বিনিয়োগকারীরা। আবার জরুরি প্রয়োজন মেটাতে অর্থ উত্তোলন করতেও পারবেন, যা কভিড-১৯-এর এই সময়ে অনেক ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীর জীবন-জীবিকার জন্য সহায়ক হবে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই লেনদেন শুরুর সিদ্ধান্তের কারণে তাদের মধ্যে উচ্ছ্বাস কাজ করছে।

শেয়ার কেনাবেচা থেকে পাওয়া কমিশনই ব্রোকারেজ হাউজগুলোর আয়ের প্রধান উৎস। দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে পুঁজিবাজার বন্ধ থাকায় এ সময়ে কোনো আয় হয়নি আড়াইশ ব্রোকারেজ হাউজের। যদিও কর্মীদের বেতন-ভাতাসহ আনুষঙ্গিক অন্যান্য খাতে ব্যয় করতে হয়েছে। তাই পুঁজিবাজার চালুর খবরে ব্রোকারেজ হাউজসংশ্লিষ্টদের মধ্যে এক ধরনের উচ্ছ্বাস কাজ করছে। কারণ বাজার চালু থাকলে কিছু না কিছু আয় তো হবেই।

আবার অন্যদিকে কভিড-১৯-এর সংক্রমণ ক্রমেই বাড়তে থাকায় নিজেদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কাও কাজ করছে তাদের মধ্যে। তবে শঙ্কা থাকলেও জীবন-জীবিকার তাগিদে ঘরে বসে থাকার আর সুযোগ নেই বলে জানান ব্রোকারেজ হাউজসংশ্লিষ্টরা।