বিদেশি শ্রমিক নেবে মালয়েশিয়া, বাংলাদেশের সম্ভাবনা

0
62

পিনিউজ ডেস্ক:

মহামারী করোনার কারণে বিদেশি শ্রমিক নিয়োগে বেঁধে দেয়া সময়সীমা তুলে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মালয়েশিয়া সরকার। দেশীয় শ্রমিকদের কর্মসংস্থান নিশ্চিতে বিদেশি শ্রমিক নিয়োগ সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয় মালয়েশিয়া সরকার।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে দেশটির মানবসম্পদমন্ত্রী দতুক সেরি এম. সারাভানান বলেন, দেশীয় শ্রমিক না পাওয়ায় প্রয়োজন মেটাতে হিমশিম খাচ্ছে অনেক প্রতিষ্ঠান। এ অবস্থায় বিদেশি শ্রমিক নিয়োগের অনুমতি দেয়ার অনুরোধ করেছেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মালিকরা। তাদের অনুরোধের ভিত্তিতেই সরকার এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

তবে মালিকদের আগে নিজ দেশের শ্রমিক নিয়োগ এবং পরে বিদেশি শ্রমিকদের পুনঃনিয়োগের ‍অনুরোধ করেছেন। এক্ষেত্রে ‍বিদেশি শ্রমিক যারা বর্তমানে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন এবং যাদের বৈধ ওয়ার্ক পারমিট আছে শুধু তাদের নিয়োগ দেয়া যাবে। কাজ হারানোর আগে বিদেশি শ্রমিকরা যে সেক্টর বা প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন তাদের সেই সেক্টরেই পুনঃনিয়োগ দেয়ারও পরামর্শ দেন মানবসম্পদমন্ত্রী।

গেল জুলাই-এ মানবসম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে বিদেশি শ্রমিক, এর মধ্যে নির্মাণ খাত, কৃষি ও বাগানের কাজে শ্রমিক ভাড়া করার উপর সীমাবদ্ধতা জারির কথা জানানো হয়।

এদিকে, বিদেশি শ্রমিক নিয়োগের ক্ষেত্রে শ্রমিকদের কোভিড-১৯ টেস্ট করাতে হবে এবং সেসব তথ্য দিয়ে ফরম পূরণ করে মালিকদের অবশ্যই প্রথমে পুত্রজায়ায় শ্রমিক অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয় বরাবর ডাকযোগে বা ই-মেইলে আবেদন করতে হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস মহামারী ছড়িয়ে পড়ার পর নানা দেশে লকডাউন ও অন্যান্য নিষেধাজ্ঞার কারণে লাখ লাখ মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন।

দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের তথ্য মতে, চলতি বছরের জুলাই পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় ৬৭ হাজার দেশীয় শ্রমিক এবং ৪৭ হাজারের বেশি বিদেশি শ্রমিক করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে কাজ হারিয়েছেন।

মালয়েশিয়ার এমন সিদ্ধান্তে বাংলাদেশি শ্রমিকদেরও কর্মসংস্থানের সম্ভাবনা রয়েছে।