ইসলামের প্রচার-প্রসারে জামেয়ার শায়খুল হাদীস শেরে মিল্লাতের অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে

0
166

স্টাফ রিপোর্টার:

এশিয়া মহাদেশের শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপিঠ জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার ওফাতপ্রাপ্ত ওস্তাদবৃন্দ দ্বীনি শিক্ষা প্রসারের পাশাপাশি ইসলামের মৌলিখ দর্শন’র প্রচারেও অন্যন্য অবদান রেখে গেছেন। তাঁদের এ অবদান যুগ যুগ ধরে স্মরণীয় হয়ে থাকবে। বিশেষ করে শেরে মিল্লাত মুফতী ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.) পুরো জীবন দ্বীনি শিক্ষা, শরীয়ত, তরীক্বত ও আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা‘আতের প্রচার-প্রসারে নিরলস খিদমত আঞ্জাম দিয়ে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করে গেছেন। তিনি আমাদের মাঝে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন।
গত ৩০ জানুয়ারী শনিবার বিকাল ৪ টায় জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদরাসা অডিটোরিয়ামে, কামিল হাদীস ২০০৪ ব্যাচের ব্যবস্থাপনায় অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ অছিয়র রহমান আলক্বাদেরীর সভাপতিত্বে এশিয়াখ্যাত দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, চট্টগ্রাম ষোলশহর, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া কামিল মাদরাসার শায়খুল হাদীস, শেরে মিল্লাত, আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ ওবাইদুল হক নঈমী (রহ.) ও ওফাত প্রাপ্ত সকল আসাতাযায়ে কিরামের স্মরণে ফাতেহা শরীফে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আনজুমানের সি. সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মুহাম্মদ মহসিন এসব কথা বলেন।
মাওলানা মুহাম্মদ ইকবাল হোসাইন ক্বাদেরীর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন, আনজুমান’র সেক্রেটারী জেনারেল আলহাজ্ব মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, শায়খুল হাদীস আল্লামা হাফেজ সোলাইমান আনসারী, উপাধ্যক্ষ ড. লিয়াকত আলী, আল্লামা আশরাফুজ্জামান আলক্বাদেরী, অধ্যক্ষ আল্লামা আবদুল আলিম রেজভী, আল্লামা আবু তাহের, আল্লামা আবুল হাশেম শাহ্, আল্লামা ড. আবদুল হালীম ক্বাদেরী, আল্লামা নুরুন্নবী আলক্বারী, আল্লামা হাফেজ আনিসুজ্জামান, গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ’র চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মুহাম্মদ, মহসচিব শাহজাদ ইবনে দিদার, যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট মোসাহেব উদ্দিন বখতিয়ার, অধ্যাপক অহিদুল আলম, মাওলানা আবদুল মালেক, মাওলানা হামেদ রেযা নঈমী ও মাওলানা কাশেম রেযা নঈমী প্রমুখ।
মাওলানা আবদুল জব্বারের বিশেষ তত্তাবধানে জামেয়া কামিল হাদীস ২০০৪ ব্যাচের আয়োজনে মাওলানা ইমরান হাসানের মিলাদ কিয়াম সালাত সালাম পরিবেশন ও মুসলিম উম্মাহ্র কল্যাণ কামনা মুনাজাতের মাধ্যমে স্মারক আলোচনা ও ফাতেহা শরীফ সমাপ্ত হয়।