করোনাকালে মানবিক সেবায় অগ্রণী গাউসিয়া কমিটিকে রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি প্রদান সময়ের দাবি

0
145

মিজানুর রহমান :

চট্টগ্রাম দারুল মুস্তফা মডেল মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক আলহাজ্ব মুহাম্মদ নঈমুল ইসলাম পুতুল বলেন, করোনাকালে গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ মানবিক সেবায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। করোনাক্রান্ত রোগী ও মৃতদেহ ফেলে আত্মীয়স্বজনরা পালিয়ে গেলেও গাউসিয়া কমিটির কর্মিরা ধর্মবর্ণ নির্বিশেষে রোগীর সেবা ও দাফন-সৎকারে যেভাবে এগিয়ে এসেছে তা সত্যিই বিরল। গাউসিয়া কমিটিকে মানবিক কর্মযজ্ঞের স্বীকৃতিস্বরূপ রাষ্ট্রীয়ভাবে সম্মাননা প্রদান সময়ের দাবি। তিনি আরো বলেন, স্বীকৃতি যেমন একটি সংগঠনকেও উৎসাহ-অনুপ্রেরণা যোগায় তেমনি অন্যদেরও মানবিক কার্যক্রমে এগিয়ে আসার রসদ যোগায়।

৯ মে বিকালে দারুল মুস্তফা মডেল মাদরাসার আয়োজনে বিভিন্ন শ্রেণিপেশার বিশিষ্টজন ও কোভিড-১৯ এর সম্মুখযোদ্ধা গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের দাফন-কাফন সৎকার টিমের সম্মানে ইফতার মাহফিল ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মোহাম্মদ কমিশনার। তিনি বলেন, নবী বংশের উজ্জ্বলতম প্রদীপ হয়রত হাফিজ ক্বারী সৈয়দ মুহাম্মদ তৈয়ব শাহ (রহ.) এর নির্দেশনায় মানুষের কল্যাণ সাধন করতেই গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠা হয়েছিল। প্রধান বক্তা ছিলেন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব আ্যডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতিয়ার।

তিনি বলেন, করোনা মহামারীর মতো ক্রান্তিকালে মানবতার পাশে দাঁড়িয়ে গাউসিয়া কমিটি হযরত তৈয়্যব শাহ (রহ.) এর দূরদৃষ্টির সার্থক রূপায়ন করেছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতব্যক্তিদের জাত-ধর্ম বিবেচনা না করে দাফন কাফন কার্যক্রম করে গাউসিয়া কমিটি মহান সূফিদের অসাম্প্রদায়িক চেতনার রূপের সাথে সমাজকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে। উদ্বোধক ছিলেন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ চট্টগ্রাম মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাওলানা মুহাম্মদ আবদুল্লাহ। তিনি দেশব্যাপী করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতদের কাফন-দাফন কার্যক্রম, অসুস্থ রোগীদের আ্যম্বুলেন্স ও অক্সিজেন সরবরাহ কার্যক্রমে সরকারি-বেসরকারি সহায়তা কামনা করেন।

অনুষ্ঠানে মুহাম্মদ মাছুমুর রশিদ কাদেরীর সঞ্চালনায় অতিথি ও আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার আরবি প্রভাষক মাওলানা আবুল আসাদ মুহাম্মদ জুবাইর রজভী, অধ্যক্ষ আবু তালেব বেলাল, বিশিষ্ট কর আইনজীবী এ্যাড. আব্দুর রশিদ দৌলতী, আলহাজ্ব মাওলানা আব্দুল মালেক, বিশিষ্ট লেখক আল্লামা জহিরুল আনোয়ার, সাংবাদিক এম.এ হোসাইন, হিজরি নববর্ষ উদযাপন পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন মাহমুদ, মহাসচিব মুহাম্মদ এনামুল হক ছিদ্দিকী, যুগ্ম মহাসচিব মুহাম্মদ শফিউল আলম, এনামুল হক, মাওলানা মুনির উদ্দীন সোহেল, মাওলানা ইলিয়াস আলকাদেরী, মুহাম্মদ রেজাউল করিম জসিম, মাওলানা মুহাম্মদ মহিউদ্দীন, নুরুল হুদা মুহাম্মদ আক্কাস, এ.জে.এম হোসাইন, মুহাম্মদ আমান উল্লাহ আমান, প্রবাসী মনছুর আলম জিহান, মাওলানা সেলিম রিয়াদ হক্কানী, মাওলানা মুহাম্মদ মোরশেদুল আলম, মুহাম্মদ গোলাম মোস্তফা, মুহাম্মদ আবদুল্লাহ আল রোমান, মুহাম্মদ শাহাদাৎ হোসাইন, মুহাম্মদ ওসমান গনি, মুহাম্মদ খালেদ বিন জাহাঙ্গীর, মুুহাম্মদ মামুন, মুুহাম্মদ দেলাওয়ার, নাঁত খাঁ আহসান হাবীব প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বৈশ্বিক মহামারী করোনাকালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণকারীদের দাফন-কাফন ও সৎকারে অগ্রণী ভূমিকা পালনকারী আধ্যাত্মিক ও মানবিক সংগঠন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশের নেতৃবৃন্দের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেয়া হয়।